আজকের পৃথিবীকে ডিজিটাল জগত বলা হলে কোন ভুল হবে না। আর এই ডিজিটাল জগতে সবচেয়ে এক্সাইটিং পেশা হলো ডিজিটাল মার্কেটিং ক্যারিয়ারডিজিটাল মার্কেটিং (Digital Marketing) এ নিত্যনতুন চ্যাঁল্যাঞ্জের কোন অভাব হয় না। আপনি একবার যদি এই পেশাতে কাজ শুরু করেন তাহলে একটা ব্যাপার কিন্তু নিশ্চিত। একঘেয়ে লাগার মত সময়ই পাবেন না আপনি।

এখন বিশ্ব জুড়ে ডিজিটাল মার্কেটিং ক্যারিয়ার ছড়িয়ে পরছে। তাই এখানে আপনার ক্যারিয়ার শুরু করার এটাই সবচেয়ে ভাল সময়। এখানে সব সময় আপনি পাবেন নতুনত্তের স্বাদ। পরপর দুটো দিন কখনই সমান পাবেন না। প্রতিযোগিতা এই পেশাতে আছে সবসময় কিন্তু সফলতার সুযোগও কম নয়।

এই কোর্সটি করতে এখানে ক্লিক করুন

ডিজিটাল মার্কেটিং ক্যারিয়ার শুরুর পদক্ষেপ সমূহঃ

ডিজিটাল মার্কেটিং ক্যারিয়ার শুরুর পদক্ষেপ সমূহ

১। সবার আগে জানা দরকার সামাজিক মাধ্যমগুলো কি করে কাজ করে 

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম শুধু সেলফি আর পোষ্ট শেয়ার করার জন্য নয়। এখানে মানুষ এবং বিভিন্ন পণ্য আর সেবার মধ্যে একটা ত্রিমুখী যোগাযোগ ঘটে। বিভিন্ন পণ্যের ব্র্যান্ড আর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের সদস্য বিভিন্ন মানুষের মাঝে এই যোগাযোগ বোঝাটা খুব জরুরী। এই যোগাযোগ পণ্যগুলোর বিক্রিতে কি করে প্রভাব ফেলছে সেটাও আপনাকে বুঝতে হবে। এটা বুঝতে পারলেই কিন্তু আপনি ডিজিটাল মার্কেটিং ক্যারিয়ার -এ প্রথম সাফল্য পেয়ে গেলেন।

ফ্রীলান্সিং করে আয় করতে : ক্লিক করুন 

২। লিঙ্কডইন-এ আপনার প্রোফাইল তৈরি করুন

পেশাগত সাফল্য পেতে হলে আপনাকে লিঙ্কডইনে সক্রিয় হতে হবে। আজকের পৃথিবীতে কি জানেন এটার চেয়ে অনেক জরুরী আপনি কাকে কাকে জানেন। লিঙ্কডইন দুনিয়াজুড়ে পেশাজীবীদের এমন একটি যোগাযোগ মাধ্যম যেখানে বিভিন্ন বিষয়ে অভিজ্ঞদের কাছ থেকে আপনার জানার অনেক সুযোগ আছে। এছাড়াও পাবেন  বিভিন্ন বিষয়ে অনেক আপডেট। আপনার আপডেটড লিঙ্কডইন প্রোফাইল সম্ভাব্য নিয়োগদাতাদের আপনার ব্যাপারে একটা বার্তাই দেবে, আপনি আপনার পেশার ব্যাপারে প্রয়োজনীয় সবকিছুই জানেন।

AliExpress.com Product – Waterproof Smart Watch Men with Camera Bluetooth Smartwatch Pedometer Heart Rate Monitor Sim Card Wristwatch

লিঙ্কডইন প্রোফাইল উন্নত করার টিপস

৩। নেটওয়ার্কিং গ্রুপে যোগ দিন

যদিও লিঙ্কডইনে অনেক গ্রুপ আছে, কিন্তু আপনার জন্য সবচেয়ে ভাল হবে যদি আপনি আপনার আশেপাশের কোন গ্রুপে সশরীরে যোগ দেন। এই গ্রুপগুলো মাঝেমাঝেই বিভিন্ন বিষয়ের অভিজ্ঞ পেশাজীবীদের আমন্ত্রণ জানায়। তাদের বক্তব্য থেকে আপনার কিন্তু অনেককিছু জানার আছে। কে জানে একদিন হয়তো আপনার ভবিষ্যৎ বসের সাথে এখানেই দেখা হয়ে যেতে পারে।

আরও পড়ুন : কিভাবে ফেসবুক মেসেঞ্জার রুম ব্যবহার করবেন

৪। খুজে নিন একজন পথ প্রদর্শক

পেশাগত জীবনে শিক্ষক নয় দরকার একজন পথপ্রদর্শকের। যিনি তার নিজের ভুলভ্রান্তি থেকে শেখা অভিজ্ঞতা আপনার সাথে ভাগ করে নেবেন। কাছের কোন অভিজ্ঞ মানুষের কাছ থেকে বিভিন্ন সময়ে বিহিন্ন বিসয় জানাটা আপনার এগিয়ে যাওয়াতে অনেক সাহায্য করবে। ডিজিটাল মার্কেটিং পেশায়ে যারাই আছেন তারা সবাই কিন্তু নতুনদের সাহায্য করতে আগ্রহী। তাই কাওকে কিছু জিজ্ঞেস করতে একদমই দ্বিধা করবেন না।

৫। সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে চলুন

সময়টাই এখন ছুটে চলার। আর ডিজিটাল মার্কেটিং ক্যারিয়ার জগতে এই চলা হয় আলোর গতিতে। এই গতির সাথে তাল মিলিয়ে নিজেকে বদলাতে না পারলেই কিন্তু পিছিয়ে পরবেন। কখন, কোথায়, কি হচ্ছে; চটজলদি জানার জন্য টুঁইটার একটা ভাল মাধ্যম। এছাড়া লিঙ্কডইন পালস থেকে আপনি জানতে পারবেন আপনার কাজের ক্ষেত্রে বা আপনার পছন্দের ক্ষেত্রে কখন কি নতুন ঘটছে। যে কোন চাকরীর ইন্টার্ভিউতে আপনাকে অবশ্যই জিজ্ঞেস করা হবে আপনার কাজের (Digital Marketing) ক্ষেত্রের একদম নতুন আপডেটগুলো। তাই এসব ব্যাপার আগে থেকেই জেনে রাখুন যেন আপনি সেসব তথ্য সময়মত ব্যাবহার করতে পারেন।

৬। শুরু করে দিন ব্লগিং

যে কোন বিসয়ে আপনার জ্ঞান অন্যের কাছে তুলে ধরার জন্য ব্লগিং এখন সবচেয়ে কার্যকরী মাধ্যম।এতে করে আপনি যেমন শিখতে পারেন তেমনি অন্যকে শেখাতেও পারেন। এটা আপনার নিজের পেসাগত বিষয়ের ওপর আপনার কতটা আগ্রহ তা অন্যের কাছে তুলে ধরে। তাছাড়াও আপনার ব্লগ কতজন পরছে বা শেয়ার করছে, এই প্রশ্ন কিন্তু ইন্টার্ভিউতে আপনাকে করা হতে পারে। তাই আপনার ব্লগটা এমন ভাবে সাজান যাতে অন্যরাও আপনার লেখার প্রতি আগ্রহ দেখায়।

কীভাবে ব্লগ থেকে আয় করবেন ?

গুগল এডসেন্স (Google AdSense) যেভাবে শুরু করবেন ?

এই কোর্সটি করতে এখানে ক্লিক করুন

৭। ডিজিটাল জগতের বিশ্লেষণটা বোঝার চেষ্টা করুন

ডিজিটাল মার্কেটিং ক্যারিয়া জগতে তথ্যের বিশ্লেষণ বোঝাটা খুবই জরুরী। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বা গুগল এনালাইটিকস কি ভাবে কাজ করে সেটা জানা আপনার জন্য খুবই প্রয়োজন। আপনাকে নানা ধরনের বিসয় বা ছবির ডিজিটাল জগতে প্রয়োগ ও প্রয়োগের তথ্য বিচার বিশ্লেষণ করতে হতে পারে। কিন্তু তার আগে এই কাজ গুলো কেমন করে করবেন সেটা জেনে নিন। গুগলের সহযোগী প্রোগ্রামগুলো থেকে আপনি এব্যাপারে বিনা মুল্যে সাহায্য পাবেন।

আরও পড়ুন : ডেটা ড্রিভেন মার্কেটিং কি 

৮। কিছু অনলাইন কোর্স করুন

ডিজিটাল মার্কেটিং ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম-এ হাতেখড়ির জন্য অনলাইনে হাজারো কোর্স রয়েছে। এর মধ্যে অনেকগুলোই আপনি বিনামুল্যে করতে পারেন। এসব কোর্স একদিকে যেমন আপনাকে প্রাথমিক বিষয়গুলো সম্পর্কে জানাবে অন্যদিকে আপনার সিভিতে যোগ করবে নতুন অভিজ্ঞতা।

ফ্রি অনলাইন কোর্স

৯। কোড শেখাটা খুবই জরুরী

এখন ইন্টারনেটে যে কোন ওয়েব ডেভলাপমেন্তের কাজ করতে হলে আপনাকে কোড করাটা জানতে হবে। আর এই কোডিং জানা মানুষের কিন্তু ডিজিটাল জগতে অনেক দাম। চাকরি বা কাজ পেতে খুব একটা সমস্যা হয়না।

একটু ঘাটাঘাটি করলেই দেখবেন এইচটিএমএল বা ওয়ার্ডপ্রেস এর কোডিং জানে এমন মানুষের খোজ হরহামেশাই চলছে। আর এদের প্রাপ্তির খাতাও কিন্তু বেশ ভারিই হয়!

DIGITAL MARKETING: Learn Fundamentals of Digital marketing

যেভাবে নিজেই নিজের ওয়েবসাইট ইন্সটল করবেন !

১০। প্রতিষ্ঠান না এজেন্সি ?

এই প্রশ্নের উত্তর তা পেয়ে গেলেই কিন্তু ডিজিটাল জগতে আপনার পা দেয়ার সময় হয়ে গেছে বুঝতে হবে। আপনি কি একটা বড় প্রতিস্থানের নিজস্ব কর্মী হিসেবে কাজ করতে চান নাকি কোন এজেন্সিতে থেকে বহুবিধ দায়িত্ব পালন করতে চান। দুটোরই ভাল মন্দ দিক আছে। চাইলে আপনি কাজের জায়গা পরিবর্তনও করতে পারেন। কিন্তু সবার আগে জানা দরাকার শুরুটা কোথা থেকে করবেন।

ডিজিটাল মার্কেটিং ক্যারিয়ার এর মত গতিশীল পেশা আপনার ভাল লাগবেই। কারন এই পেশাতে একঘেয়েমির কোনই সুযোগ নেই। প্রতিটা দিন আপনার জন্য নতুন কোন সম্ভবনা নিয়ে আসবে।

ভিডিও দেখে শিখতে পারেন : ক্লিক করুন

যদি এ সম্পর্কে আপনার আরও জানার কিছু থাকে তাহলে আমাদের ইমেইল করতে পারেনঃ quiries@bscoialtoday.net

লেখক পরিচিতি :

Md.Arifur Rahman

Arifur Rahman, Digital Marketing Expert , SEO Expert , Digital Marketing Trainer, PPC Expert ,Social Media Specialist,Consultant, ডিজিটাল মার্কেটিং ক্যারিয়ার

Digital Marketing Expert । SEO Expert | Digital Marketing Trainer |
PPC Expert | Social Media Specialist | Consultant

ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to Top