আমাজন এর নাম শুনেন নি বা আমাজন থেকে প্রোডাক্ট কেনার ইচ্ছা জাগেনি এই যুগে এমন মানুষ খুঁজে পাওয়াটা একটু কঠিন হবে। আমাজন হচ্ছে  ই-কমার্স  মার্কেটপ্লেস যেখান থেকে আপনি আপনার পছন্দমতো প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র কিনে নিতে পারবেন। আজকের আর্টিকেল আমরা Amazon এর CEO Jeff Bezos এর লাইফ স্টাইল সম্পর্কে জানবো ।

১৯৯৪ সালে Jeff Bezos  Washington State এ আমাজন এর যাত্রা শুরু করে। তারপর থেকে লম্বা পথ পাড়ি দিয়ে আমাজন এখন ইন্টারন্যাশনাল ব্র্যান্ড হয়ে উঠেছে। 

আমাজন এর প্রতিষ্ঠাতা Jeff Bezos একজন সৌখিন মানুষ।  কোটি কোটি টাকা খরচ করে তিনি তার শখ গুলো মিঠিয়ে নেন। শখ মিঠাতে কোটি টাকা খরচ করবেনই  না কেন ? জেফ বেজোস হচ্ছেন আমাজন এর প্রতিষ্ঠাতা অন্য দিকে পৃথিবীর দ্বিতীয় ধনী ব্যক্তি।  ২০২২ সালের হিসাব অনুযায়ী জেফ বেজোস এর মোট সম্পত্তির পরিমান ১৮ হাজার ৩৮০ কোটি আমেরিকান ডলার। তাহলে শখ মিঠাতে কোটি টাকা খরচ করাটা তার কাছে স্বাভাবিক বিষয়। 

তাহলে চলুন জেনে নেই পৃথিবীর দ্বিতীয় ধনী ব্যক্তি জেফ বেজোস এর  কিছু বিলাসীতা সম্পর্কে। 

জেফ বেজোস এর সৌখিন জিনিসের তালিকা

প্রাইভেট জেটপ্লেন :

জেফ বেজোস তার ব্যক্তিগত কাজে ইউরোপ থেকে আমেরিকা, আমেরিকা থেকে পরও বিশ্ব ঘুরে বেড়ান জি-৬৫০ইআর নামের তার প্রাইভেট বিমানে।  জি-৬৫০ইআর হচ্ছে বিশ্বের দ্রুততম জেটপ্ল্যান। যার মূল্য সাড়ে ছয় কোটি আমেরিকান ডলার।

Jeff Bezos এর লাইফ স্টাইল

মিউজিয়াম বাড়ি:

আমেরিকার রাজধানী ওয়াশিংটন ডিসিতে জেফ বেজোস এর একটি বাড়ি আছে। তার এই বাসভবনটি অনেকটা মিউজিয়াম এর মতো। কারণ এক কালে এই বাসভবনটি পোশাক এবং কাপড়ের জাদুঘর ছিল পরবর্তীতে জেফ বেজোস বাড়িটি কিনে তার বাসভবনে পরিণত করেন।  তা এই বাড়িটির মূল্য প্রায় আড়াই কোটি আমেরিকান ডলার। জেফ বেজোসের এই বাড়িটি এটি বড় যে এতে ১১টি শয়নঘর, ২৫টি স্নানঘর, পাঁচটি বসার ঘর এবং দু’টি লিফ্ট রয়েছে।

Jeff Bezos এর লাইফ স্টাইল

প্রাসাদ:

জেফ বেজোসের আরেকটি বাড়ি রয়েছে যাকে প্রাসাদ বলা হলে ভুল হবে না। কি নেই তার এই বাড়িতে। ফিটনেস সেন্টার,গেম সেন্টার, মুভি সেন্টার থেকে শুরু করে প্রায় সবই রয়েছে এই প্রাসাদে।  জেফ বেজোসের এই প্রাসাদে প্রায়  ১১.২ কোটি আমেরিকান ডলারের সম্পত্তি রয়েছে।

হলিউডে বাড়ি:

লস অ্যাঞ্জলেসের বেভারলি হিলসে জেফ বেজোস তার পরিবারের সাথে হলিডে কাটাতে যান। তার এই বাড়িটি ৯ একর জায়গার উপর তৈরী করা যার মূল্য ১৬.৫ কোটি আমেরিকান ডলার।

সুপার ইয়ট:

বিশ্বের সবচেয়ে বড় সুপার ইয়ট এর নাম হতে যাচ্ছে ওয়াই ৭২১ যার মূল্য  ৫০ কোটি আমেরিকান ডলার। এই সুপার ইয়টটির মালিকানা ও জেফ বেজোস এর হাতে।  তবে ২০১৮ সাল থেকে ওয়াই ৭২১ তৈরীর কাজ শুরু হলে ও এর কাজ এখন প্রায় শেষের দিকে। 

রোবট কুকুর:

আমরা শখের বসে বিভিন্ন প্রাণীকে পোষ মানাই। জেফ বেজোস এর ও একটি পোষা কুকুর রয়েছে তবে এটি যেমন তেমন কুকুর নয় এটি একটি রোবট কুকুর। যাকে জেফ বেজোস স্পট নাম দিয়েছেন। জেফ বেজোস এর এই রোবট কুকুরটির মূল্য সাড়ে ৭৪ হাজার আমেরিকান ডলার। 

Jeff Bezos এর লাইফ স্টাইল

হ্রদের বাড়ি:

জেফ বেজোস এর আরো একটি বাড়ি রয়েছে যা ওয়াশিংটনের মেদিনা হ্রদের পাশে অবস্থিত। এই বাড়িটি প্রায় ২ হেক্টর জায়গার উপর তৈরী করা।  তার এই বাড়িটির মূল্য প্রায় ১২ কোটি ডলার।

দৈত্য’ ঘড়ি:

প্রায় ১০০০০ বছর চালানোর টার্গেট নিয়ে জেফ বেজোস দৈত্য আকৃতির ঘড়ি তৈরি করছেন যার কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে। এই ঘড়িটির উচ্চতা প্রায় ৫০০ ফুট যা স্ট্যাচু অফ লিবার্টি থেকে ও উঁচু। এই ঘড়িটি তৈরী করতে জেফ বেজোস এর প্রায় সাড়ে চার কোটি ডলার খরচ হবে। 

Jeff Bezos এর লাইফ স্টাইল

একজন মানুষের বিলাস বহুল জীবন কেমন হতে পারে তা আপনারা আইডিয়া করে নিয়েছেন। জেফ বেজোস যে একদিনে সব কিচু এচিভ করেছিলেন তা কিন্তু নয়।  তার আজকের এই অবস্থানে আসার পিছনের পথ অনেক কঠিন ছিল। সে বিষয়ে আমরা অন্য দিন আলোচনা করবো

আমাদের আর্টিকেল রিলেটেড ভিডিও গুলো দেখতে এখনই আমাদের YouTube চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন এবং ফেইসবুক পেজটি লাইক করুন।

ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to Top