কোন প্রফেশনাল ওয়ার্ডপ্রেস ডেভেলপারকে টাকা না দিয়ে নিজের ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইটটি এলিমেন্টর পেজ বিল্ডার দিয়ে তৈরি করে নিতে চান ? তাহলে আপনার জন্যই আমাদের আজকের এই আয়োজন।

আপনি হয়ত কোন ডেভেলপারের সাথে কথা বলেছেন এবং আপনার প্রয়োজন অনুসারে ডেভেলপার আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করে দিতে অনেক টাকা চাচ্ছেন ।

হ্যা, এমনটা আমাদের ক্ষেত্রে প্রায়শই ঘটে থাকে। আর সেখান থেকে এই ” এলিমেন্টর পেজ বিল্ডার ” এর আগমন। এই এলিমেন্টর পেজ বিল্ডার দিয়ে কোন ধরনের কোডিং জানা ছাড়াই খুব সহজেই নিজের ওয়ার্ডপ্রেসের ওয়েবসাইটটি নিজে নিজেই তৈরি করে নিতে পারবেন।

কোর্সটি করতে এখানে ক্লিক করুন

AliExpress.com Product – Top Brand Luxury Chronograph Quartz Watch Men Sports Watches Military Army Male Wrist Watch Clock CURREN relogio masculino

আজকে আমরা জানবো চমৎকার এই এলিমেন্টর পেজ বিল্ডার প্লাগইনটি সম্পর্কে, কীভাবে এটি কাজ করে এবং এলিমেন্টর পেজ বিল্ডার প্লাগইনটির বিভিন্ন ফিচারগুলো দিয়ে কীভাবে একটি চমকপ্রদ ওয়েবসাইট তৈরি করে ফেলা যায় ।

এলিমেন্টারি প্লাগিন ফ্রি ডাউনলোড করুন : ক্লিক করুন

ওয়ার্ডপ্রেসে এলিমেন্টর পেজ বিল্ডার প্লাগইন আসলে কি ? 

এলিমেন্টর পেজ বিল্ডার দিয়ে খুব সহজেই শুধুমাত্র ড্র্যাগ এন্ড ড্রপ, অর্থাৎ মাউসের মাধ্যমে ক্লিক করে করেই একটি চমৎকার ওয়েবসাইট তৈরি করে নিতে পারবেন। ওয়ার্ডপ্রেসের মাধ্যমে সাধারণ ভাবেই আপনাকে একটি পেজ তৈরি করে নিতে হবে, অতঃপর এই এলিমেন্টর পেজ বিল্ডার দিয়ে সুন্দর করে মাউস ক্লিকের মাধ্যমেই ডিজাইন করে নিতে হবে নিজের পছন্দের পেজটি।

এলিমেন্টর পেজ বিল্ডার এর একটি মজার ফিচার হল পেজ তৈরির সময় সবকিছু আপনি একদম লাইভ দেখে দেখেই এডিট করতে পারবেন এবং কোন ডিজাইন পছন্দ না হলে সাথে সাথেই সেটাকে রিমুভ করে দিয়ে তাৎক্ষনিক অন্য ডিজাইন তৈরি করে ফেলতে পারবেন। 

সর্বোপরি আপনি একজন ডেভেলপার না হয়েই নিজের পছন্দ মত করে ওয়েবসাইট তৈরি করে নিতে পারবেন। কোন ধরনের টেকনিকাল সাপোর্ট আপনার প্রয়োজনই হবে না। কেননা, আপনাকে একদমই কোড ব্যবহার করতে হবে না। 

এলিমেন্টারি প্লাগিন ফ্রি ডাউনলোড করুন : ক্লিক করুন

এলিমেন্টর প্লাগইন দিয়ে কীভাবে ওয়েবসাইট ডিজাইন করতে পারবেনঃ 

এলিমেন্টর হল শুধুমাত্র মাউস ক্লিকের মাধ্যমে ড্র্যাগ এবং ড্রপ দ্বারা ওয়েবসাইট তৈরি করার প্লাগইন। এই প্লাগইনটির মধ্যে বিভিন্ন ধরনের ফিচার আছে, যেগুলো দিয়ে আপনি কোডিং জানা ছাড়াই ওয়েবসাইটের নির্দিষ্ট পেজটি সুন্দর করে ডিজাইন করে ফেলতে পারবেন।

কোর্সটি করতে এখানে ক্লিক করুন

এছাড়াও সেই ফিচারগুলোর মাধ্যমে পেজের মধ্যে থাকা বিভিন্ন কন্টেন্ট নিজের মত করেই সাজিয়ে গুছিয়ে নিতে পারবেন। 

বর্তমান সময়ে এই এলিমেন্টর পেজ বিল্ডার টি প্রায় নয় লাখেরও বেশি মানুষ প্রতিনিয়ত ব্যবহার করছেন।

এলিমেন্টর প্লাগইন দিয়ে যেভাবে পেজ এবং পোস্ট তৈরি করবেন

সাধারণ ভাবে আপনি ওয়ার্ডপ্রেসের মধ্যে নতুন পোস্ট অথবা পেজ যেভাবে ক্রিয়েট করে নেন সেখানেই আপনি পেজটি তৈরি করার সময় “edit with elementor” অপশনটি খুঁজে পাবেন। এই লেখাটির মধ্যে ছোট্ট একটি ক্লিকের মাধ্যমেই আপনি এলিমেন্টর প্লাগইনটি চালু করে নিতে পারবেন।

এলিমেন্টর প্লাগইনটি চালু হলেই নিচের ছবিটির মত এলিমেন্টরের পেজ বিল্ডারের অপশনগুলো আপনি দেখতে পারবেন। এর বা পাশের ফিচারগুলোর মধ্যে বেশ কিছু এলিমেন্ট এবং উইগেট রয়েছে যেগুলো আপনি চাইলেই সেখান থেকে টেনে এনে আপনার নির্দিষ্ট পেজের মধ্যে দিতে পারবেন। এছাড়া এই ফিচারগুলোর সেটিংস বার আপনি একদম নিচেই পেয়ে যাবেন।

আপনার কন্টেন্ট এরিয়ার মধ্যে “Add New Section” অথবা “Add Template” এ ক্লিক করে আপনি পেজের মধ্যে নতুন এলিমেন্ট যোগ করতে পারবেন। 

এলিমেন্টর পেজ বিল্ডার প্লাগইনের ইউজার ইন্টারফেস
ক্লিক করুন

প্রত্যেকটি সেকশন হল একটি ডিজাইন লে-আউটের জন্য আলাদা ব্লক বা জায়গা, যেখানে বেশ কয়েকটি কলাম নিয়ে ডিজাইন করা যেতে পারে। যখন আপনি add new section এ ক্লিক করছেন, নির্দিষ্ট পেজের মধ্যে কন্টেন্ট দেখানোর জন্য একটি জায়গা তৈরি করে নিচ্ছেন।

যেখানে পরবর্তীতে আপনি নিজের মত করে কন্টেন্ট তৈরি করে ওয়েবসাইটে একটি প্রফেশনাল লুক নিয়ে আসতে পারবেন। নতুন সেকশন নেয়ার সময় আপনি ১২টি লেআউট ডিজাইন থেকে একটি নির্দিষ্ট ডিজাইন পছন্দ করে নিতে পারবেন। ডিজাইনের লেআউটের স্ক্রিনশট নিচে দেয়া হলঃ

আপনার পেজের সেকশনের জন্য পছন্দ অনুযায়ী স্ট্রাকচার সিলেক্ট করার পর আপনি সেই সেকশনে বাম পাশের এলিমেন্ট থেকে মাউস ক্লিকের মাধ্যমে টেনে এনে সেই সেকশনটি সাজিয়ে তুলতে পারবেন।

বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুনঃ 

যেভাবে নিজেই নিজের ওয়েবসাইট ইন্সটল করবেন !

আর নিচের স্ক্রিনশটের মাধ্যমে আপনি দেখতে পাচ্ছেন যে বাম পাশের ডিজাইন আপনি যেমন করেই পরিবর্তন করেন না কেন, সেটা ডান পাশে লাইভ দেখাবে। যার ফলে নিজের ভুলগুলো বা পছন্দগুলো আপনি তাৎক্ষণিক ভাবে শুধরে নিতে পারবেন।

আর আপনি যদি বসে বসে নিজের মত করে ডিজাইন তৈরি করতে না চান তাহলেও সমস্যা নেই, কেননা এখানে প্রায় ৩০০টির মত টেমপ্লেট তৈরি করা আছে।

কোর্সটি করতে এখানে ক্লিক করুন

যেগুলোর মধ্যে আপনার পছন্দ অনুযায়ী টেম্পলেটটি সিলেক্ট করে নিলে ওয়েবসাইটের সেই নির্দিষ্ট পেজটি অটোমেটিক ভাবেই সেই টেমপ্লেটের মত তৈরি হয়ে যাবে। আপনাদের বুঝার সুবিধার্থে টেমপ্লেটগুলোর একটি স্ক্রিনশট নিচে দেয়া হলঃ 

এমনকি আপনি এই টেমপ্লেটগুলোর মধ্যে যে কোন একটি সিলেক্ট করে সেটাকে নিজের মত করে কাস্টোমাইজ করে নিতে পারবেন। 

এলিমেন্টর পেজ বিল্ডার প্লাগইনের এলিমেন্ট এবং রেডি টেমপ্লেট 

এই অসাধারণ প্লাগইনটি সত্যিই আপনার অনেক ঝামেলা কমিয়ে নিয়ে আসবে। এখানে অনেক ধরনের এলিমেন্ট এবং উইগেট রয়েছে যেগুলোর মাধ্যমে খুব সহজেই ওয়েব পেজ বা পোস্টটি সাজিয়ে নিতে পারবেন। আপনার প্রয়োজন অনুসারে হেডলাইন, বাটন, ফর্ম, গুগোল ম্যাপ সহ আরো অনেক ধরনের এলিমেন্ট খুঁজে পাবেন। 

এখানে এলিমেন্টর প্লাগইনের উইগেটগুলোর সাথে সাথে ওয়ার্ডপ্রেসের ডিফল্ট যে প্লাগইনগুলো আছে সেগুলোও আপনি চাইলে ব্যবহার করতে পারবেন।

এছাড়া আলাদা আলাদা থিমের নির্দিষ্ট কিছু উইগেট থাকে এলিমেন্টরের সাথে আপনি সেগুলোও ব্যবহার করতে পারবেন একদম স্বাচ্ছন্দ্যে। কেননা এলিমেন্টর প্লাগইনটি এমন ভাবে তৈরি করা হয়েছে যে এই প্লাগইনটি যে কোন থিমের সাথেই খুব সহজেই ব্যবহার করা যায়। 

বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুনঃ 

ওয়ার্ডপ্রেস থিম নির্বাচন করার সহজ রোডম্যাপ

আপনার পছন্দের থিম এবং প্লাগইন ইন্সটল করে নিন, এরপর এলিমেন্টর দিয়ে খুব সহজেই থিম এবং প্লাগইন দিয়ে নিজের পছন্দ অনুযায়ী ওয়েব পেজটি সাজিয়ে নিন। উপরন্তু আপনার নিজের তৈরি করা ডিজাইনটি আপনি টেমপ্লেট হিসেবে সেভ করেও সেটা পরবর্তীতে অন্য পেজে ব্যবহার করতে পারবেন। 

সেভ বাটনে ক্লিক করার মাধ্যমে ডিজাইনটিকে টেমপ্লেট হিসেবে সেভ করে নিতে পারবেন। 

এভাবেই আপনার নতুন তৈরি করা টেম্পলেটটি এলিমেন্টরের টেমপ্লেট লাইব্রেরীর মধ্যে সেভ হয়ে যাবে। 

এভাবে সেভ করার পর আপনি যে কোন পেজের মধ্যেই নিজের তৈরি এই টেমপ্লেটটি ব্যবহার করতে পারবেন। এছাড়াও আপনি চাইলে এই টেমপ্লেটটি এক্সপোর্ট করে আপনার অন্য কোন ওয়েবসাইটেও এই টেমপ্লেটটি ব্যবহার করা সম্ভব। তাই আপনাকে প্রতিবার একদম নতুন করে ওয়েবসাইটের পেজ তৈরি করতে হবে না। 

এলিমেন্টর দিয়ে ইচ্ছেমত ডিজাইন পরিবর্তনের সুবিধা 

আপনার ওয়েবসাইটের ডিজাইন ঠিক নিজের ইচ্ছেমত যতবার খুশি পরিবর্তন করতে পারবেন। এলিমেন্টর প্লাগইনের Style এবং Advance মেনুতে ক্লিক করে আপনি পরিবর্তন করার সকল অপশন দেখতে পারবেন। 

এই অপশনের মধ্যে আপনি নির্দিষ্ট সেকশনের width এবং height, কলামের আকৃতি পরিবর্তন সহ কন্টেন্ট কি সেন্টারে থাকবে না কি উপরে অথবা নিচে থাকবে সব নির্দিষ্ট করে দিতে পারবেন। এছাড়াও সেকশনের মধ্যে প্রতিটা কন্টেন্টের মধ্যে প্যাডিং, মারজিন সহ সবকিছু সেট করে দিতে পারবেন। 

এলিমেন্টরের সাহায্যে রিসপনসিভ ডিজাইন তৈরি করুন 

এলিমেন্টর প্লাগইন দিয়ে আপনি যে ডিজাইন করবেন সেটা অবশ্যই রিসপনসিভ হবে। অর্থাৎ যে কোন ডিভাইস দিয়েই ওয়েবসাইটটি খুব স্বাচ্ছন্দ্যে ব্রাউজ করা যাবে এবং পিসি, মোবাইল, ট্যাব সহ সকল ডিভাইসেই ওয়েবসাইটের ডিজাইন হবে নান্দনিক এবং দর্শনীয়। 

স্বাভাবিক ভাবে এলিমেন্টর প্লাগইনের ভিউটি ডেক্সটেপ ভিউতে সেট করা থাকে। তবে এখানে এমন অপশন রাখা আছে যে ডিজাইনটি মোবাইলে অথবা ট্যাবে কেমন লাগবে সেটাও জানতে পারবেন সেই ডিভাইসের অপশনে ক্লিক করার মাধ্যমে। 

কোর্সটি করতে এখানে ক্লিক করুন

এছাড়াও এখানের responsive অপশনের মধ্যে advance অপশনে ক্লিক করে আপনি চাইলে যে কোন ডিভাইসে নির্দিষ্ট যে কোন প্লাগইন বা কন্টেন্ট দেখানো বন্ধ করে দিতে পারবেন।  

ডিজাইনের প্রতিটি স্টেপ হিস্টোরি থেকে যায় undo/redo অপশন 

এলিমেন্টর প্লাগইনের মধ্যে ব্রাউজিং হিস্টোরি থেকে যায়, যার মাধ্যমে আপনি যে কোন ধরনের পরিবর্তনগুলো খুব সহজেই নিজের পছন্দ অনুযায়ী পুনরায় পরিবর্তন করে নিতে পারবেন। এই প্লাগইনটি আপনার সব ধরনের পরিবর্তন সেভ করে রাখবে যাতে যে কোণ সময়ে নির্দিষ্ট পরিবর্তনটি বাদ দিয়ে দেয়া যায়। 

এলিমেন্টরের আরো কিছু আকর্ষণীয় ফিচার 

চমৎকার এই প্লাগইনটি সম্পর্কে এতক্ষন যা পড়েছেন তাতে আশাকরি বুঝতেই পারছেন যে এই প্লাগইনটির মাধ্যমে কতটা সহজেই কোন ধরনের কোডিং করা ছাড়াই নিজের ওয়েবসাইটের বিভিন্ন পেজ কতটা সহজেই ডিজাইন করে ফেলা সম্ভব। এখন জেনে নেই এই প্লাগইনটির আরো কিছু ফিচার সম্পর্কেঃ 

Inline editing:

এই ফিচারের মাধ্যমে আপনি সরাসরি স্ক্রিনের মধ্যেই আপনার কন্টেন্টের লেখাগুলো পরিবর্তন করে ফেলতে পারবেন। এর মাধ্যমে আপনি যে কোন ব্লগ পোস্ট লিখে ফেলতে পারবেন এবং যে কোন কন্টেন্ট সরাসরি এডিট বা পরিবর্তন করে ফেলতে পারবেন। 

Header এবং footer এডিটরঃ

এই এডিটিং অপশনের মাধ্যমে আপনি ওয়েবসাইটের হেডার এবং ফুটার এরিয়াতে খুব সহজেই পরিবর্তন করে ফেলতে পারবেন। আর এই পরিবর্তনগুলো আপনি সরাসরি স্ক্রিনেই করে ফেলতে পারবেন। 

Translation and RTL ready:

এই প্লাগইনের মধ্যে প্রায় ২৩টি ভাষায় অনুবাদ করার সুবিধা রয়েছে। RTL language সাপোর্ট করা চমৎকার এই প্লাগইনটি দিয়ে এই অনুবাদ প্রক্রিয়াটি একদমই সহজ। 

Global colors এবং Typography:

এই ফিচারের মাধ্যমে আপনি গ্লোবার কালার এবং লেখার রঙগুলো খুব সহজেই পরিবর্তন করে নিতে পারবেন। আর এই রঙ পরিবর্তনের মাধ্যমে  আপনার ওয়েবসাইটকে খুবই আকর্ষণীয় করে ফেলা যেতে পারে। 

এলিমেন্টর পেজ বিল্ডারের আকর্ষণীয় টাইপোগ্রাফি অপশন

প্রায় ৮০০টিরও বেশি ফন্ট কালেকশন সমৃদ্ধ এলিমেন্টর প্লাগইনে আপনার লেখাকে আরো সুন্দর করে ফেলার জন্য রয়েছে টাইপকিট ফর্মস। 

থার্ডপার্টি ইন্টিগ্রেশনঃ

এই প্লাগইনটি ব্যবহার করার সময় আপনি অন্যান্য আরো অনেক ধরনের থার্ড পার্টি প্লাগইন এবং উইগেট ব্যবহার করতে পারবেন। 

আন্ডার কন্সট্রাকশন মুডঃ

এই মুডটি এনাবল করে দিলে আপনি যখন ওয়েবসাইট ডিজাইন করতে থাকবেন ততক্ষন পর্যন্ত আপনার সাইটের ভিজিটররা এসে দেখবেন আপনার সাইটটি আন্ডার কন্সট্রাকশনে রয়েছে। আপনি ডিজাইন পুরোপুরি শেষ করে এরপর এই মুডটি অফ করে দিলে আপনার ওয়েবসাইট পুনরায় ভিজিটরদের জন্য খুলে যাবে। 

ই-কমার্স উইগেটঃ

এলিমেন্টর প্লাগইনের মধ্যে ই-কমার্স ওয়েবসাইট তৈরি করার জন্য রয়েছে বিশেষ সুবিধা। 

এলিমেন্টর প্লাগইনের মূল্য সম্পৃক্ত কিছু তথ্য

এলিমেন্টরের একটি ফ্রি ভার্শন রয়েছে এবং এই ভার্শনের মাধ্যমেও আপনি কাজ চালিয়ে নেয়ার মত ওয়েবসাইট ডিজাইন করে ফেলতে পারবেন। এই ফ্রি ভার্শনেও বেশ কিছু উইগেট রয়েছে যার মাধ্যমে আপনি একটি সাধারণ মানের ওয়েবসাইট তৈরি করে ফেলতে পারবেন। 

তবে আপনি যদি নিজের ওয়েবসাইটের মধ্যে প্রফেশনাল লুক নিয়ে আনতে চান তাহলে আপনাকে অবশ্যই এই প্লাগইনের পেইড ভার্শনটি কিনে নিতে হবে। তবে এ নিয়ে অতটা ভাবনার কিছু নেই কেননা এই প্লাগইনটির মুল্যে একজন ডেভেলপার হায়ার করা থেকে খুব বেশি নয়। 

তিন ধরনের মুল্যে এই প্লাগইনটি আপনি ক্রয় করে নিতে পারবেন। আপনি চাইলে একটি ওয়েব সাইটের জন্য মাত্র ৪৯ ডলারে প্লাগইনটি ক্রয় করে নিতে পারেন।

এছাড়া তিনটি ওয়েবসাইটের জন্য প্লাগইনটি ক্রয় করতে পারবেন মাত্র ৯৯ ডলারে। আর আনলিমিটের অফারটি সত্যিই আকর্ষণীয়! কেননা এই আনলিমিটেড অফারের মাধ্যমে আপনি যত খুশি তত সাইটে প্লাগইনটি কিনে নিতে পারবেন। 

এছাড়া এলিমেন্ট ব্যবহার করা অনেক সহজ, আর সেই সহজ ব্যবহারকে আরো সহজতর করে দিবে অনলাইনে থাকা হাজার হাজার টিউটোরিয়াল। যার মাধ্যমেই আপনি খুব সহজেই ব্যবহার করতে পারবেন এই এলিমেন্টর ।

আমাদের নিজস্ব মতামত 

একদম নিজস্ব মতামত প্রকাশ করতে বললে, আমি অবশ্যই বলব এলিমেন্টর প্লাগইনটি বর্তমানে সেরাদের তালিকায় একদম শীর্ষে রয়েছে। এই প্লাগইনটি ব্যবহার এতটাই সহজ যে কোন ধরনের কোডিং জানা ছাড়াই যে কেউ নিজের ওয়েবসাইট নিজস্ব আঙ্গিকে সাজিয়ে গুছিয়ে নিতে পারবেন। আপনাকে যেতে হবে না কোন ডেভেলপারের কাছেও ।

আর অনলাইনে এত এত টিউটোরিয়াল রয়েছে সেগুলোর মাধ্যমেও এই প্লাগইনটি আরো সহজে ব্যবহার করে ফেলতে পারবেন। 

লেখক পরিচিতিঃ

Md.Arifur Rahman

Arifur Rahman, Digital Marketing Expert , SEO Expert , Digital Marketing Trainer, PPC Expert ,Social Media Specialist,Consultant, এলিমেন্টর পেজ বিল্ডার, এলিমেন্টর প্লাগইন

Digital Marketing Expert | SEO Expert | Digital Marketing Trainer |
PPC Expert | Social Media Specialist | Consultant

Sharing Is Caring

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to Top
Newsletter Subscription Looking for More Traffic from Digital Campaign

Subscribe to our weekly newsletter below and keep updated with us.